হস্তমৈথুন করলে হাত প্রেগন্যান্ট হয়ে যাবে, বললেন তুরস্কের ধর্মগুরু

হস্তমৈথুন কোনও রোগ বা অপরাধপ্রবণতা নয়, একদম স্বাভাবিক জৈবিক প্রবৃত্তি। বিভিন্ন বিশেষজ্ঞের মতামত ও গবেষণা বরং বলে, পরিমিত হস্তমৈথুন শরীরের বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধসহ শরীর, মন ফুরফুরে ঝরঝরে রাখে। তবে হস্তমৈথুন নিয়ে বিভিন্ন কুসংস্কার প্রচলিত থাকলেও হস্তমৈথুন করলে হাত প্রেগন্যান্ট হয়, এমন উদ্ভট হাস্যকর কথা বলে আলোচনায় এসেছেন তুরস্কের এক ধর্মগুরু।

তুরস্কের এই ধর্মগুরু টিভিতে ও ইউটিউব চ্যানেলে মানুষের সমস্যার সমাধান করে থাকেন। নাম মুশাহিদ চিহাদ হান। তাঁকে এক দর্শক প্রশ্ন করেছিলেন, ‘‘আমি বিবাহিত। কিন্তু আমি হজ করতে যাওয়ার সময়েও হস্তমৈথুন করেছি। আমার কী হবে?’’

এর উত্তরে হান বলেন, ‘‘বেশি হস্তমৈথুন করলে আপনার হাতই প্রেগন্যান্ট হয়ে যাবে।’’ অর্থাৎ হাতেই গর্ভাবস্থার সৃষ্টি হবে। হাতেই নাকি বাচ্চা হবে।

শুধু তাই নয়, পিঙ্ক নিউজ-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, তিনি সেই টিভির অনুষ্ঠানে এটিই দাবি করেছিলেন, হস্তমৈথুন করা আসলে ‘হারাম’ বা নিষিদ্ধ। আর হাত দিয়ে যৌন সংসর্গ করলেও একই কাণ্ড হতে পারে। তবে সবটাই হবে পরজীবনে।

এই ধরণের নানা প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে হান আরও বলেন, ‘‘যদি আমার দর্শক অবিবাহিত হতেন, তাহলে না হয় একটা কথা ছিল। আমি বলতে পারতাম বিয়ে করো। কিন্তু এই ক্ষেত্রে আমি আর কী বলব?’’

এর পরেই তিনি পরামর্শ দেন, ‘‘শয়তানের প্রবৃত্তিকে আটকাও।’’

এমন পরামর্শের কথা ছড়িয়ে পড়তেই হানকে তখন সোশ্যাল মিডিয়ায় হাসির খোরাক হতে হয়। কেউ কেউ বলেন, ‘‘আমি ভাবছি হাতে কি শিশু জন্মাবে, নাকি আরেকটি হাত জন্মাবে?’’

কেউ মন্তব্য করেছেন, ‘‘যাক তাহলে আমি একা একাই বাবা হতে পারি।’’ কেউ আবার হাতে কন্ডোম পরে হস্তমৈথুন করারও পরামর্শ দিয়েছেন।

 

Spread the love
  • 11
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    11
    Shares

আপনার মন্তব্য লিখুন