মেধাবীরা দেরিতে ঘুমায়, স্মার্ট ও সৎ হয়

রাতে দেরি করে ঘুমালে বাবা মার অভিযোগের হাত থেকে নিস্তার নেই। বাবা মা’র এমন অভিযোগ উপেক্ষা করে অনেকে অভ্যাসও তৈরি করে ফেলেছেন রাত জাগার। অনেকে আবার রাত জাগা অভ্যাসকে অসুস্থতা ভেবে ডাক্তারের শরণাপন্ন হন। তাদের স্বস্তি দিতে গবেষকরা নিয়ে এলেন নতুন গবেষণা। তাদের দাবি,  আইকিউ বা বুদ্ধিমত্তা বেশি এমন মানুষ রাতে বেশি সক্রিয় থাকেন। ফলে গভীর রাত পর্যন্ত জেগে থাকেন তারা।

গবেষণাপত্রে এদের স্মার্ট বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এই ধরণের মানুষ পরিস্থিতি বদলের সঙ্গে সঙ্গে নিজের দক্ষতা বাড়াতে পারেন। সমস্যা সমাধানে এদের বিশেষ উত্সাহ দেখা যায়।

এই বিষয়ে অ্যালবার্ট আইনস্টাইন বলেছিলেন, জ্ঞান বুদ্ধিমত্তার নির্ণায়ক নয়, বুদ্ধিমত্তা বোঝা যায় কল্পনাশক্তি দিয়ে। গবেষকরা বলছেন, প্রকৃত বুদ্ধিমান মানুষ সব কিছু সকারাত্মক ভাবে দেখেন। যে কোনও পরিস্থিতি থেকে সেরাটা বার করার চেষ্টা করেন তাঁরা। এমন ধরণের মানুষ নিজেদের ভুল থেকে সব থেকে বেশি শেখেন।

রাত-জাগা অভ্যাসীদের ব্যাপারে আইকিউ সম্পর্কে গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে, যারা রাত ১১.৪১ মিনিটের মধ্যে ঘুমিয়ে পড়েন তাদের আইকিউ ৭৫ বা তার কম। আর যারা ১২.৩০ মিনিটের পরেও জেগে থাকেন তাদের আইকিউ ১২৩ বা তার বেশি।

বুদ্ধিমান ও মেধাবীদের সম্পর্কে গবেষকরা বলছেন, সাধারণ মানুষের চেয়ে কিছুটা অগোছালো হন বুদ্ধিমান ও মেধাবীরা। তারা তাদের ভাবনাকে প্রতিষ্ঠিত করতে অশালীন শব্দ ব্যবহার করতেও ভাবেন না।

গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, এই ধরণের মানুষের নৈতিকতার মান খুব উঁচু হয়।

Spread the love
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

আপনার মন্তব্য লিখুন