কে এই আফগান চার্লি চ্যাপলিন?

যুদ্ধের বিভীষিকাময় সময়ের সঙ্গে যখন বেড়ে উঠছে আফগান তরুণরা তখন সেখানে হাজির এক নতুন চার্লি চ্যাপলিন। মানুষকে অভিনয় দেখিয়ে আনন্দ দেন এই অভিনেতা। তার নাম করিম আসির। চার্লি চ্যাপলিনের মতোই অভিনয় করে ইতোমধ্যে আফগান চার্লি চ্যাপলিন হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন তিনি।

১৯৯৬ সালে আফগানিস্তান তালেবানের কঠোর নিয়ন্ত্রণে চলে গেলে করিমের পরিবার ইরানে পালিয়ে যায়। সেখানেই তাঁর ছোটবেলা কাটে। সে সময় ইরানি টেলিভিশনে করিম চার্লি চ্যাপলিনের অভিনয় দেখেন। পরে তাঁর পরিবার আফগানিস্তানে ফিরে এলে তাঁদের উদ্বেগ সত্ত্বেও করিম মুখে মেক-আপ জুড়ে দিয়ে চার্লি চ্যাপলিন হয়ে মানুষকে আনন্দ দিতে, হাসাতে রাস্তায় নেমে পড়েন। জঙ্গিগোষ্ঠী তালেবান কিংবা ইসলামিক স্টেটের (আইএস) আক্রমণ, আত্মঘাতী বোমা হামলার শিকার মৃত্যু আর শোক ছাওয়া শহরে কিছুক্ষণের জন্য হলেও করিম  ছড়িয়ে দেন  আনন্দ।

তার কার্যক্রম ইসলামের সঙ্গে যায় না বলে তাকে হুমকিও দিয়েছে উগ্রপন্থীরা। কিন্তু এসব সত্ত্বেও পাবলিক পার্কে, বিভিন্ন পার্টি ও এতিমখানায় তিনি কৌতুক অভিনয় করেন। আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থার দাতব্য কার্যক্রমেও অংশ নিতে দেখা যায় তাকে।

করিম আসির দৃঢ় প্রত্যয়ের সঙ্গে বলেন, ‘যেকোনো সময় কোনো আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী বা বোমা বিস্ফোরণের শিকার হতে পারি আমি, আমাকে তাড়িয়ে বেড়ায় সে ভয়, কিন্তু তবুও কোনো ভয়ই আমাকে চার্লি চ্যাপলিন হওয়া থেকে দূরে রাখতে পারবে না।’

আসিরের ভাষায়, ‘‘আমি তাঁদের দুঃখ ভোলার একটা সুযোগ করে দিতে চাই৷’’

কাবুলে সবাই আসিরের পারফরম্যান্সের ভক্ত৷ দেখা হলেই সেলফি নেয়ার জন্য তাঁরা হুমড়ি খেয়ে পড়েন৷ আসিরও সবসময় হাসিমুখেই তাঁদের স্বাগত জানান৷ কিন্তু তারপরও তাঁর মনে ভয়, এই জনপ্রিয়তাই হয়ত একসময় কাল হয়ে দাঁড়াবে৷ কিন্তু তারপরও, বিস্ফোরণ বা আত্মঘাতী বোমাকে ভয় পান না আসির৷ মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি চার্লিই থাকতে চান৷

Spread the love
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    5
    Shares

আপনার মন্তব্য লিখুন