ধর্ষন নয়, পল্লবির সঙ্গে ‘সম্মতিতে সম্পর্ক’ হয়েছিল : আকবর

#মি-টু আন্দোলন বলিউডের আঙিনা ছাড়িয়ে এখন সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। একে একে সেলিব্রেটিগণ তাদের জীবনে ঘটে যাওয়া যৌন হেনস্তা বা ধর্ষণের অভিযোগ নিয়ে আসছেন। সম্প্রতি ধর্ষণের অভিযোগ করেন দ্য এশিয়ান এইজ-এর সাবেক সাংবাদিক পল্লবী গগৈ। তার অভিযোগ, ভারতের সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও সাংবাদিক এম জে আকবর তাকে ধর্ষণ করেছেন।

তবে এই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন আকবর।

Image result for পল্লবী গগৈ এবং ভারতের সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও সাংবাদিক এম জে আকবর

একটি সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া বিবৃতিতে আকবর জানান, ‘‘১৯৯৪ সাল নাগাদ পল্লবী গগৈ এবং আমার মধ্যে সম্পর্ক তৈরি হয়। তাতে দু’জনেরই সম্মতি ছিল। বেশ কয়েকমাস টিকেও ছিল সম্পর্কটি। বিষয়টি সর্বসমক্ষে এসে পড়ায় বাড়িতে তা নিয়ে ঝামেলা শুরু হয়। যার পর সম্পর্ক ভেঙে যায়। তবে সম্পর্কের শেষটা বোধহয় ভাল হয়নি।’’

প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর দাবি, সেই সময় তাদের সঙ্গে যারা কাজ করতেন, তাদের অনেকেই সম্পর্কের কথা জানতেন। বিষয়টি নিয়ে সাক্ষ্য দিতে রাজি সকলেই।

কিন্তু আকবরের এই দাবি প্রত্যাখ্যান করেছেন পল্লবী গগৈ।

এক বিবৃতিতে পল্লবী গগৈ বলেছেন, আমার ওপর যৌন নির্যাতনের দায় স্বীকার করে নেয়ার পরিবর্তে এম জে আকবর দাবি করেছেন, এ সম্পর্ক ছিল উভয়ের সম্মতিতে; আসলে তা নয়।

পল্লবী বলছেন, যে সম্পর্ক বল প্রয়োগ করে হয় তা উভয়ের সম্মতিতে কখনোই মেনে নেয়া যায় না।

উল্লেখ্য, ১লা নভেম্বর ওয়াশিংটন পোস্টে একটি লেখায় পল্লবী তার ওপর যৌন নির্যাতনের বর্ণনা দেন। তিনি জানান, ২৩ বছর আগে জয়পুরের একটি হোটেলে তাকে ধর্ষণ করেন আকবর। সে সময় আকবর সম্পাদিত দ্য এশিয়ান এইজ পত্রিকার একজন সহকর্মী ছিলেন পল্লবী।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া, ইন্ডিয়া টুডে

 

Spread the love
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    5
    Shares

আপনার মন্তব্য লিখুন