মুক্তির কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ইউটিউবে ছড়িয়ে পড়ল ‘থাগস অফ হিন্দোস্তান’

মুক্তির কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ইউটিউবে ছড়িয়ে গেল ‘থাগস অফ হিন্দুস্তান’৷ ‘তামিল রকার্স’ নামে একটি অনলাইন সাইটের বিরুদ্ধেই এই ছবিটি ইউটিউবে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে৷ ওই সংস্থার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছে প্রযোজনা সংস্থা যশরাজ ফিল্মস৷

Image result for থাগস অব হিন্দুস্তান

ব্রিটিশ রাজ্যে ঠগদের কাহিনিকে পর্দায় তুলে ধরেছেন পরিচালক বিজয় কৃষ্ণ আচার্য। ঝাঁ চকচকে দৃশ্যায়ণ। অমিতাভ এখানে ঠগদের সর্দার। ঠগ বলতে এখানে কিন্তু ঠগী নয়, জলদস্যু। তাদের সর্দার খুদাবক্স। ব্রিটিশদের পদদলিত হওয়া তার একেবারেই পছন্দ নয়। তাই বিদেশিদের কালঘাম ছোটাতে ব্যস্ত সে। দেশ থেকে ইংরেজ হটাও অভিযানে নিজের মতো করে শামিল হয়েছে সে। ব্রিটিশদের জাহাজ দেখলেই লুট করে নেয়। তার দলের অন্যতম সেরা যোদ্ধা জাফিরা। এই দুই জলদস্যুর দাপটে ব্রিটিশের নাকানিচোবানি অবস্থা। এমন পরিস্থিতি থেকে তাদের উদ্ধার করতে পারে একমাত্র তাদের মতোই এক ঠগ। এই সময়ই ব্রিটিশদের ত্রাতার ভূমিকায় অবতীর্ণ হয় ফিরঙ্গি মল্লা৷ তার চরিত্রে অভিনয় করেছেন আমির খান। কানপুরের এই যুবক নিজেকে বিশ্বাসঘাতক বলেই পরিচয় দেয়। খুদাবক্সকে কবজায় আনতে একেই ঘুঁটি হিসেবে ব্যবহার করে ব্রিটিশরা। তাদের হয়েই ঠগদের সর্দারের মন জয় করে সে। এই গল্পকে সিলভার স্ক্রিনে দেখার আশা নিয়ে বৃহস্পতিবার হলমুখী হয়েছিলেন দর্শকরা৷ তাবড় তাবড় অভিনেতারা রয়েছেন৷ একদিকে অমিতাভ বচ্চন তো আরেকদিকে আমির খান, কাকে ছেড়ে কাকে দেখবেন? এই ভাবনাচিন্তা নিয়ে হলমুখী হয়েছিলেন সিনে অনুরাগীরা৷ কিন্তু জলদস্যুদের কাহিনি মন ভরাতে পারেনি দর্শকদের। তিন ঘণ্টার ছবিটিতে কাহিনিকে অহেতুক টেনে বাড়ানো হয়েছে। ক্যাটরিনার উপস্থিতি নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন দর্শকরা৷

প্রত্যাশাপূরণ করতে না পারায় ‘থাগস অফ হিন্দোস্তান’ নিয়ে আলোচনার শেষ নেই৷ এরই মাঝে ইউটিউবে ছড়িয়ে পড়ল গোটা সিনেমাটি৷  ফলে সিনেমার বাণিজ্যিক সাফল্য মার খাবে বলেই আশঙ্কা প্রযোজনা সংস্থার৷ এর আগেও ‘তামিল রকার্স’-এর মাধ্যমে ‘সরকার’ সিনেমাটি ছড়িয়ে পড়েছিল ইউটিউবে৷ ‘তামিল রকার্স’ -এর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার চিন্তাভাবনা করছে ‘থাগস অফ হিন্দোস্তান’-এর প্রযোজক সংস্থা যশরাজ ফিল্মস৷

-সংবাদ প্রতিদিন

Spread the love
  • 10
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    10
    Shares

আপনার মন্তব্য লিখুন