স্ত্রীর আপত্তিকর ভিডিও পর্ন সাইটে আপলোডের অভিযোগ, স্বামী গ্রেফতার

ঢাকার পার্শ্ববর্তী জেলা নারায়ণগঞ্জে স্ত্রীর আপত্তিকর ভিডিও পর্নো সাইটে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে মিলন গাঙ্গুলী (৩৫) নামে এক স্বামী গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (১২ নভেম্বর) দুপুরে স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে জামতলা থেকে স্বামী মিলন গাঙ্গুলীকে গ্রেফতার করে ফতুল্লা থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত মিলন জামতলা ধোপাপট্টি এলাকার বৃন্দাবন গাঙ্গুলীর ছেলে। তার স্ত্রী একই থানার হরিহর পাড়া আমতলা এলাকার বাসিন্দা।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বছর তিনেক পূর্বে মিলন গাঙ্গুলীর সঙ্গে অভিযোগকারীর পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই শাশুড়ি ও ননদের প্ররোচনায় স্বামী মিলন গাঙ্গুলী তাকে বিভিন্ন সময় শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতো। এ অবস্থায় ১ বছর পূর্বে শাশুড়ি, ননদ ও স্বামী তাকে বাসা থেকে বের করে দেয়। বাবার বাড়ি থেকে যৌতুকের টাকা নিয়ে বাড়ি ফেরার জন্য হুমকি দেয় তারা। দাবিকৃত যৌতুকের টাকা নিয়ে না শ্বশুর বাড়িতে ফিরে যায়।

এরপর থেকে স্বামী মিলন বিভিন্ন সময় স্বামী-স্ত্রীর শারীরিক মিলনের দৃশ্য তার ল্যাপটপের ওয়েব ক্যামেরায় ধারণ করে রাখে এবং সম্প্রতি ওইসব আপত্তিকর ৭টি ভিডিও ক্লিপ পর্নো সাইটে ছড়িয়ে দেয়।

এ প্রসঙ্গে মিলন গাঙ্গুলী পুলিশের কাছে বলেন, দীর্ঘদিন তার এবং তার স্ত্রীর সম্পর্ক ভালো ছিল না। একাধিকবার তাকে বাড়ি ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করলেও তার স্ত্রী ফিরে আসেনি। এমন অবস্থায় রাগের বসে স্ত্রীর আপত্তিকর ভিডিও পর্ন সাইটে ছড়িয়ে দেন।

ফতুল্লা থানার এসআই আবেদ বলেন, স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা জামতলায় অবস্থিত মিলনের বাড়ি অভিযোগ পরিচালনা করি। এ সময় তার স্ত্রীর একাধিক আপত্তিকর ভিডিও উদ্ধার হয়। আমরা একটি পর্ন সাইটেও অাপলোডকৃত আপত্তিকর ভিডিও খুঁজে পাই। এসব আলামত পাওয়ার পর আমরা মিলন গাঙ্গুলীকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসি।

ফতুল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ মোহাম্মদ মঞ্জুর কাদের গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘স্ত্রীর অভিযোগে পর্নোগ্রাফির ১ ও ৩ ধারায় মিলন গাঙ্গুলীকে আটক করা হয়েছে। তার ল্যাপটপ জব্দ করে তার স্ত্রীর বেশ কয়েকটি আপত্তিকর ভিডিও পাওয়া যায়। আমরা চেষ্টা করছি আপলোডকৃত ভিডিওগুলো মুছে ফেলার।’

 

Spread the love
  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    8
    Shares

আপনার মন্তব্য লিখুন