যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা পেলেন এলভিস প্রিসলি

এল্‌ভিস প্রিস্‌লি ছিলেন মার্কিন রক সঙ্গীতশিল্পী ও অভিনেতা। তিনি বিংশ শতাব্দীর সবচেয়ে জনপ্রিয় গায়ক এবং সবচেয়ে বহুল বিক্রিত অ্যালবামের সঙ্গীতশিল্পীদের মধ্যে অন্যতম। তাকে “কিং অব রক অ্যান্ড রোল” বা আরও সহজভাবে “দ্য কিং” নামে অভিহিত করা হয়। এবার তিনি পেলেন যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা মেডেল অব ফ্রিডম । মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতা গ্রহণের পর এই প্রথম এই সম্মাননা প্রদান করা হলো। হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে এলভিসকে একজন স্থায়ী আমেরিকান পথিকৃৎ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

Image result for এলভিস প্রিসলি

এলভিসের আগে মার্কিন সংগীত জগতের এলা ফিৎজেরাল্ড, বব ডিলান ও স্টেভি ওয়ান্ডার এই সম্মাননা পেয়েছিলেন। ৮ জানুয়ারি ১৯৩৫ সালে জন্ম নেওয়া এই তারকার মৃত্যু হয় ১৯৭৭ সালের ১৬ আগস্ট।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, শুক্রবার এই সম্মাননা প্রদান করা হয়। এলবিস ছাড়া এবার আরও যারা এই সম্মাননা পেয়েছেন তাদের মধ্যে রয়েছেন, বেসবল খেলোয়াড় বেব রুথ এবং সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি প্রয়াত অ্যান্থনিন স্ক্যালিয়া, এনএফএল’র হল অব ফেমে স্থান পাওয়া রজাব স্টবাখ ও অ্যালান পেজ, উতাহ’র অবসরপ্রাপ্ত সিনেটর অরিন হ্যাচ এবং চিকিৎসক মিরিয়াম অ্যাডেলসন।

সম্মননা প্রদান অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী ভাষণে ট্রাম্প বলেন, পৃথিবীর সবচেয়ে ভালো দক্ষতা, আবেগ ও মেধা থাকায় যুক্তরাষ্ট্রের জন্য আশীর্বাদ। আমরা সত্যিকার অর্থেই মহান জাতি, আমরা খুব ভালো করছি এবং সত্যিকার অর্থেই ভালো আছি।

চিকিৎসক মিরিয়াম অ্যাডেলসনকে সম্মননা দেওয়ায় সমালোচনার মুখে পড়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। কারণ মিরিয়াম হলেন ক্যাসিনো ব্যবসায়ী ও রিপাবলিকান পার্টি তহবিল দাতা শেলডন অ্যাডেলসনের স্ত্রী।

প্রসঙ্গত, গানের পাশাপাশি অভিনয় অঙ্গনে পদচারণা রয়েছে এলভিস প্রিসলির। প্রিসলি অভিনীত ১ম মুভিটি ছিল ‘লাভ মি টেন্ডার’। এটি মুক্তি পায় ১৯৬৫ সালের নভেম্বরে। সবমিলিয়ে ৩৩টি মুভিতে অভিনয় করেন তিনি।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আপনার মন্তব্য লিখুন