কাদের খানের মৃত্যু গুজব, সত্য নয়

গত কয়েকদিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি বলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা কাদের খান। রবিবার গভীর রাতে আচমকাই তাঁর মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তাঁকে শ্রদ্ধা জানানোর হিড়িক পড়ে যায় নেটিজেনদের মধ্যে। সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যাওয়া অভিনেতার মৃত্যুর খবর উড়ালেন তার ছেলে সরফরাজ খান।

কলকাতা২৪ পত্রিকার খবরে বলা হয়, এক সাক্ষাৎকারে সরফরাজ জানিয়েছেন, কাদের খানের মৃত্যু নিয়ে একটি গুজব সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। যা শুধুমাত্রই গুজব। এর সঙ্গে বাস্তবের কোনও মিল নেই বলেই দাবি তার। একইসঙ্গে সরফরাজ জানিয়েছেন, এখনও হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। শ্বাসকষ্টের কারণে কাদের খানকে ভ্যান্টিলেশনে রাখা হয়েছে বলেও দাবি করেছেন বর্ষীয়ান এই অভিনেতার ছেলে।

Image result for কাদের খান

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার চিকিৎসার জন্য তাকে কানাডার স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা দেখা দিলে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করা হয় কাদের খানকে। পরে পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় তার মুখে মাস্ক পরিয়ে শরীরে অক্সিজেন দেওয়া হয়। পরে নিউমোনিয়া, শ্বাসকষ্টসহ তার শরীরে বার্ধক্যজনিত বেশ কিছু সমস্যাও ধরা পড়ে। ফলে, ক্রমশ খারাপ হতে শুরু করে বলিউড অভিনেতার শারীরিক অবস্থা।

কানাডায় বেশ কয়েক বছর ধরেই ছেলের পরিবারের সঙ্গে থাকছেন কাদের খান। কিছুদিন আগেই হাঁটুতে অস্ত্রোপচার হয়েছিল প্রবীণ এই অভিনেতার। সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সে কথা জানিয়েছেন তার ছেলে সরফরাজ। তবে অস্ত্রোপচার সফল হলেও, শারীরিক দুর্বলতা তো বটেই, হাঁটাচলার ক্ষমতা একেবারে হারিয়ে ফেলেন কাদের খান।

১৯৭৩ সালে ‘দাগ’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক হয় কাদের খানের। দীর্ঘ চার দশকেরও বেশি সময় ধরে তিন শতাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। সেইসঙ্গে পরিচালক, চিত্রনাট্যকারের ভূমিকাও পালন করেছেন।

Spread the love
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

আপনার মন্তব্য লিখুন